মিটাপ

এক লক্ষ মেম্বার পূর্তির অনুষ্ঠানে সফল ফ্রিল্যান্সার পরিবার

বাংলাদেশের এক গ্রামের সেই ছোট্ট স্বপ্নবাজ তরুণ যে কিনা এক প্রকার চ্যালেঞ্জ হিসেবেই নিয়েছিল  ব্যাপারটাকে, তার অক্লান্ত পরিশ্রম এবং স্পৃহার কারণেই আজ এমন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরী হয়েছে যেখানে প্রতিনিয়ত লাখো মানুষ তাদের ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক নানা সমস্যার সমাধান পাচ্ছেন। শুরুর দিকের চলার পথটা এতো মসৃণ না হলেও, অনেকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করলেও আজ তারা সবাই সফল ফ্রিল্যান্সার এর সাথে আছেন। কেননা সফল ফ্রিল্যান্সার  সেই আস্থা অর্জন করেছে আর তারই বহিঃপ্রকাশ হিসেবে মাত্র নয় মাসে আপনাদের সকলের ভালোবাসায় সফল ফ্রিল্যান্সার পরিবারে এক লক্ষ মানুষ যুক্ত হলো। 

অনেক ধন্যবাদ এবং অভিনন্দন আপনাদের সকলকে। আপনাদের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা এবং অনুপ্রেরণার ফলেই এটা সম্ভব হয়েছে। আমাদের যে স্বপ্ন, মিশন এবং ভিশন আছে সেগুলো পূরণের একমাত্র হাতিয়ার আপনাদের এই আস্থা, সাপোর্ট এবং ভালোবাসা। তাই এই এক লক্ষ মেম্বার এর মাইলফলক স্পর্শ করার খুশিতে ছোট্ট একটা সেলিব্রেশন এর আয়োজন করা হয়েছিল বিগত ২২শে সেপ্টেম্বর। সফল ফ্রিল্যান্সার মিটআপ ১.০ অনুষ্ঠিত হবার পরে এটিই আমাদের অফিসিয়াল সীমিত পরিসরে দ্বিতীয় অনুষ্ঠান। করোনাকালীন সময়ের কারণে বড় কোন সেলিব্রেশন করা সম্ভব হয়নি এবং সবাইকে সংযুক্ত করা যায় নি কিন্তু তবুও আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি যাতে এই আনন্দটুকু আপনাদের সাথে ভাগাভাগি করে নেওয়া যায়। গ্রুপে সারাদিন ধরেই চলছিল অনেক অনেক গিভওয়ে এবং স্পেশাল ডোমেইন এন্ড হোস্টিং অফার। সবচেয়ে চমকপ্রদ যেটি ছিল সেটি হচ্ছে আমাদের এডমিন প্যানেল এর সাথে সরাসরি দেখা এবং ডিনার করার সুযোগ। দুইজন সৌভাগ্যবান ব্যক্তি সেই সুযোগটি পেয়েছিলেন এবং আমরা তাদেরকে পেয়ে অনেক বেশি আনন্দিত ছিলাম। 

রাজধানী ঢাকার অভিজাত এলাকা ধানমন্ডির একটি রেস্টুরেন্টে এই সেলিব্রেশন এর আয়োজন করা হয়। সেখানে এডমিন প্যানেলের যারা বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন তাদের প্রায় সকলেই উপস্থিত ছিলেন। যারা খুব ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও আসতে পারেন নি এবং যাদেরকে ঘিরে আসলে মূল অনুষ্ঠানটি আয়োজিত ছিল তাদের সবাইকে আমরা অনেক বেশি মিস করেছি। সন্ধ্যা সাতটায় প্রোগ্রাম শুরু হয় তবে এর আগেই এডমিন প্যানেলের সদস্যরা সেখানে গিয়ে প্রোগ্রামের অ্যারেঞ্জমেন্ট সম্পন্ন করে। বড় করে একটি ব্যানার টানানো হয় যেখানে সফল ফ্রিল্যান্সার এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সহ প্রতিষ্ঠাতা দুইজনের ছবি বিদ্যমান ছিল। আর যারা আমাদের সাথে ছিলেন না তারা সকলে দূরে থেকেও কাছে ছিলেন ফেসবুক লাইভ এর মাধ্যমে। কেক কাটার মধ্য দিয়ে প্রোগ্রাম এর শুভ সূচনা হয়। সবাই একে অন্যের মুখে এক টুকরো কেক তুলে দেন এবং অভিনন্দন জানান। আমাদের অতিথিরা তাদের আনন্দ অভিব্যক্তি প্রকাশ করে লাইভে এবং সরাসরি সফল ফ্রিল্যান্সার এর প্রতিষ্ঠাতা কাশিম উদ্দিন মাসুম ও সহ প্রতিষ্ঠাতা মাহমুদুল হাসান এবং অন্য এডমিনদের সাথে কথা বলেন। একে একে লাইভে সবার কমেন্ট পড়ে তাদের জিজ্ঞাসার উত্তর দেয়া হয়। পুরোটা সময় জুড়ে একটি উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজমান ছিল সেখানে।

লাইভ শেষ করেই শুরু হয় খাওয়া-দাওয়ার পর্ব। খাবার বুফে সিস্টেমে ছিল তাই যে যার ইচ্ছে মতো ও পছন্দ মতো খাবার নিয়ে সবাই একসাথে বসে খাওয়া শুরু করে এবং দেখতে দেখতে সময় গড়িয়ে রাত দশটা পার হয়ে যায়। খাওয়া দাওয়ার মাঝেই সবাই মিলে আড্ডা এবং গল্পে মেতে উঠে। কিভাবে মানুষকে আরো ভালোভাবে সাহায্য করা যায়, তাদের স্বপ্নপূরণে সহযোগী হওয়া যায় সে বিষয়েও বিস্তর আলাপ চলে সবার সাথে। ফটো সেশন শেষে সবাই একত্রে সেখান থেকে বিদায় নিয়ে প্রোগ্রামের পরিসমাপ্তি ঘটায়।

 

lima

Author

lima

Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

জানেন তো আগামী ২ তারিখ শুরু হবে আমাদের কমপ্লিট SEO এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং কোর্স! সেখানে প্রথম ১০০ জনের জন্য থাকবে স্পেশাল ডিসকাউন্ট!

নিজেকে ভাগ্যবান হিসাবে দেখতে চান?  তাহলে আর অপেক্ষা কেনো? যদি কোর্সটি করতে চান এবং নিজেকে প্রথম ১০০ জনের মধ্যে দেখতে চান তাহলে এখনি ইমেইল দিয়ে দিন!