ওয়েব ডিজাইন

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শুরু করবেন যেভাবে

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শব্দটির সাথে আমরা কমবেশি সবাই পরিচিত। ফ্রীল্যান্সিং জগতে যে কাজ গুলো করে সবচেয়ে বেশি টাকা ইনকাম করা যায় তারমধ্যে অন্যতম হল ওয়েব ডেভেলপমেন্ট।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কি?

বিংশ শতাব্দীতে এসে ইন্টারনেটের সাথে পরিচিত নয় এমন লোক কি খুজে পাওয়া যাবে? আমরা প্রতিদিনই বিভিন্ন ওয়েবসাইট যেমন গুগল,ফেসবুক,ইউটিউব ইত্যাদি ব্যাবহার করি। কখনো কি ভেবে দেখেছেন এসব ওয়েবসাইট কারা তৈরি করেছে বা এগুলো কিভাবে কাজ করে? ওয়েবসাইট বানানোর কাজকেই বলা হয় ওয়েব ডেভেলপমেন্ট। আর যারা ওয়েবসাইট তৈরি করে তাদের বলা হয় ওয়েব ডেভেলপার।

কিভাবে ওয়েব ডেভেলপার হওয়া যাবে ?

আপনি নিশ্চই বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজের নাম শুনেছেন যেমন সি, সি++, এইচটিএমএল, পাইথন ইত্যাদি। ওয়েব ডেভেলপারদের প্রধান কাজই হচ্ছে কোডিং। কারণ ব্রাউজার তো আপনার আর আমার ভাষা বুঝে না, তাকে কোড দিয়েই বুঝাতে হয়। ওয়েব ডেভেলপার হওয়ার জন্য আপনাকে বেশ কয়েকটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজে পারদর্শী হতে হবে। যেমন HTML, CSS, JavaScript, Python, PHP ইত্যাদি। আর এই সব গুলো ল্যাঙ্গুয়েজ আপনি ভালোমত জানার পাশাপাশি প্রয়োগ করতে পারলেই নিজেকে ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে পরিচয় দিতে পারবেন।

ওয়েব ডেভেলপারের প্রকারভেদ

ওয়েব ডেভেলপাররা কি কাজ করে সেটাতো বুঝলেন কিন্তু এখন যে সমস্ত জটিল ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে একজনের পক্ষে সবকিছু করা সম্ভব নয়। তাই কাজের উপর ভিত্তি করে তাদেরকে ৩ ভাগে ভাগ করা হয়েছে।

  • ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপার

আপনি কোন একটি ওয়েবসাইটে ঢুকলে প্রথমে যা কিছু আপনার চোখে পড়ে সেটি তৈরি করেন ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপাররা। মানে প্রতিটা পেজের কোথায় কি থাকবে, সাইজ কেমন হবে, কোন রঙের হবে এসব কিছু নিয়ন্ত্রণ করেন ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপার। আর এই কাজ গুলো করার জন্য মূলত HTML, CSS, JavaScript জানলেই চলে।

  • ব্যাক-এন্ড ডেভেলপার

আপনার হয়ত মনে হতে পারে ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপাররা অনেক কষ্ট করে, কিন্তু ব্যাক-এন্ড ডেভেলপারদের কাজ আরো বেশি কঠিন। কারন তাদেরকে সার্ভার-সাইড, ডেটাবেজ এবং অন্যান্য এপ্লিকেশনসহ সব কিছু দেখাশোনা করা লাগে। তাছাড়া যদি আপনার ওয়েবসাইটটিকে SEO করতে চান তখন ব্যাক-এন্ড ডেভেলপারদেরই ভূমিকা সবচাইতে বেশি। ব্যাক-এন্ড ডেভেলপার হওয়ার জন্য আপনাকে অনেক গুলো ল্যাঙ্গুয়েজ জানতে হবে। সার্ভার-সাইডের জন্য PHP, Java, Python, Ruby এবং ডেটাবেজ এর জন্য SQL ই অধিক জনপ্রিয়।

  • ফুল-স্ট্যাক ডেভেলপার

ফুল-স্ট্যাক ওয়েব ডেভেলপার হল তারা, যারা ফ্রন্ট-এন্ড এবং ব্যাক-এন্ড দুটিতেই সমানভাবে পারদর্শী। যারা ব্যাক-এন্ড ডেভেলপার তাদের সবাইকেই প্রথমে HTML, CSS শিখে আসতে হয়েছে। পরে তারা তাদের কাজের সুবিধার জন্য নিজেদের ক্ষেত্রকে বেছে নিয়েছেন। তাই সবকিছুর টার্গেট না করে যার যেটা ভাল লাগে সেদিকেই যাওয়া উচিত। কারণ একজন মানুষের পক্ষে কখনোই সবকিছু জানা সম্ভব নয়।

কোথায় থেকে শিখবেন ?

এখন তো সবকিছু বুঝলেন তো চলুন কোথায় শিখবেন সেটাও জেনে নেওয়া যাক। আর সফল ফ্রীল্যান্সারে যেহেতু এসেছেন তারমানে সবকিছু ফ্রীতেই পাবেন।

ইউটিউবে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট নিয়ে হাজারো টিউটোরিয়াল আছে। একটু খুজলেই পেয়ে যাবেন। তার মধ্যে Udacity, LearnCode.Academy এই চ্যানেল গুলো ফলো করতে পারেন।

এটি আমার অনেক প্রিয় একটি ওয়েবসাইট। আপনি চাইলে শুধুমাত্র w3schools থেকেই ফুল-স্ট্যাক ডেভেলপার হতে পারবেন। এখানের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল আপনাকে ভিডিও দেখে বোর হতে হবে না, তাদের বিল্ট-ইন এডিটরে আপনি করে করে শিখতে পারবেন। সাথে প্রতিটা লেকচারের শেষে এক্সারসাইজ এবং কুইজও রয়েছে।

W3Schools এর পরেই আসে codeacademy। এটাও অনেক ভালো একটি ওয়েবসাইট। আগে ফ্রী ছিল কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন কোর্সে চার্জ লাগে। তবে ফ্রীতেও অনেক কিছু শেখার সুজোগ রয়েছে।

এটি ফুল ফ্রী একটি প্লাটফর্রম। অনেক বড় বড় ডেভেলপাররাও freecodecamp থেকে শিখেছেন। এখানেও আপনি সবকিছুই করে করে শিখতে পারবেন কিন্তু w3schools এর মত সাজানো গোছানো না।

এডিটর

নোটপ্যাডে কোড লিখে যেন আপনার সময় নষ্ট না হয় সেজন্য রয়েছে বিভিন্ন সফটওয়ার। এখানে আপনি tag বা attribute লেখার আগেই auto-complete এর সাজেশন চলে আসবে। তাছাড়া HTML আর CSS এর জন্য রয়েছে আলাদা হাইলাইটেড কালার। একবার কোড লিখতে শুরু করলেই সব বুঝে যাবেন আর না পারলে ইউটিউব তো আছেই।

এটিকে GitHub তৈরি করেছে। আমার সবচাইতে প্রিয় এডিটর।

Microsoft এর পক্ষ থেকে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি IDE. এর মাধ্যমে শুধু ওয়েব ডেভেলপমেন্ট না, অন্য সকল প্রোগ্রামিংই আপনি করতে পারবেন।

কত সময় লাগবে?

এটি মূলত নির্ভর করবে আপনি প্রতিদিন কত সময় দিতে পারবেন তার উপর। যদি প্রতিদিন ৬-৭ ঘন্টা করে শিখতে পারেন তাহলে ৬ মাসের মধ্যে ওয়েব ডেভেলপার হওয়া কোন ব্যাপারই না। তাই যত বেশি সময় পারেন এটার পেছনে লেগে থাকেন, সাফল্য আসবেই।

Asif Hasan

Author

Asif Hasan

Comments (2)

  1. ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শুরু করবেন যেভাবে – My Blog
    জুন 3, 2020 জবাব

    […] বিংশ শতাব্দীতে এসে ইন্টারনেটের সাথে পরিচিত নয় এমন লোক কি খুজে পাওয়া যাবে? আমরা প্রতিদিনই বিভিন্ন ওয়েবসাইট যেমন গুগল,ফেসবুক,ইউটিউব ইত্যাদি ব্যাবহার করি। কখনো কি ভেবে দেখেছেন এসব ওয়েবসাইট কারা তৈরি করেছে বা এগুলো কিভাবে কাজ করে? ওয়েবসাইট বানানোর কাজকেই বলা হয় ওয়েব ডেভেলপমেন্ট। আর যারা ওয়েবসাইট তৈরি করে তাদের বলা হয় ওয়েব ডেভেলপার। […]

  2. fake breitling watches
    সেপ্টেম্বর 16, 2020 জবাব

    Absolutly the exact product seen on site. Received it way sooner than anticapated.

Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

জানেন তো আগামী ২ তারিখ শুরু হবে আমাদের কমপ্লিট SEO এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং কোর্স! সেখানে প্রথম ১০০ জনের জন্য থাকবে স্পেশাল ডিসকাউন্ট!

নিজেকে ভাগ্যবান হিসাবে দেখতে চান?  তাহলে আর অপেক্ষা কেনো? যদি কোর্সটি করতে চান এবং নিজেকে প্রথম ১০০ জনের মধ্যে দেখতে চান তাহলে এখনি ইমেইল দিয়ে দিন!